পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২ । পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত? - Padma Bridge Length Details 2022

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২ । পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত? - 25 জুন, 2022 তারিখে, পদ্মা বহুমুখী সেতু (পদ্ম সেতু) তার দরজা খুলে দিয়েছে, যা বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের সাথে ঢাকাকে সংযুক্ত করেছে। পদ্মা সেতুর স্থাপত্যের কয়েকটি অনন্য উপাদান রয়েছে। 


আর এই অসামান্য গুণাবলীর জন্যই বাংলাদেশ শ্রেষ্ঠত্বের জন্য বিশ্বব্যাপী সুনাম অর্জন করেছে। নদীর কাছাকাছি হলেও রেল সেতুটি পানি থেকে কমপক্ষে ১৮ মিটার দূরে থাকবে। ফলে পানির উচ্চতা বাড়লেও পণ্যবাহী জাহাজ বা ট্রলার দ্রুত সেতুর তলা দিয়ে চলে যেতে পারে। 

 

সেতুর নিয়মিত আলোর ব্যবস্থা ছাড়াও রয়েছে ‘স্থাপত্য আলো’। বিশ্বের অনেক প্রকৌশলীর জন্য, এই পদ্মা সেতুর নকশা এবং সমাপ্তি একটি ইঞ্জিনিয়ারিং বিস্ময়।

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

আরো পড়ুন:

►► ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২

►► জীবন নিয়ে বিখ্যাত উক্তি 

►► বাংলা মাসের কত তারিখ আজ 

►►  হাত কাটা পিকচার ডাউনলোড 

চুল পড়া বন্ধ করার ঘরোয়া উপায় 

►► নতুন মোবাইল ফোনের দাম ২০২২

►► শুভ সকালের সুন্দর ছবি ও কবিতা

৮ হাজার টাকার মধ্যে মোবাইল ফোন

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২

পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু" যা বাংলাদেশের মানুষের জন্য একটি বিরাট প্রাপ্তি।  পদ্মা সেতু শুধু মাত্র নদি পারাপারের বাহনই নয় বরং বাংলাদেশের মানুষের স্বপ্ন ও বটে। যা বাংলার মানুষের অত্যান্ত গৌরবের বিষয়। 

 

ইতিমধ্যে বাংলাদেশ সরকার মাননীয় শেখ হাসিনা গত ২৫ ই জুন পদ্মা সেতুর উদ্ভোধন করেছেন। তবে পদ্মা সেতুকে নিয়ে শেষ হয়নি আমাদের কৌতুহল, শেষ হয়নি তার সম্পর্কে জানার, এখন পদ্মা সেতুকে গিরে রয়ে গিয়েছে আমাদের অনেক প্রশ্ন। চলোন জেনে আসি পদ্মা সেতুকে গিরে সমস্ত প্রশ্নের উত্তর।

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতুর ওভারভিউ

পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু একটি দ্বি-স্তরের কাঠামো যা শক্তিশালী পদ্মা নদীতে শক্তিশালী। দ্বি-স্তরের ইস্পাত ট্রাস সেতুটি নীচের স্তরে একটি একক-ট্র্যাক রেলপথ এবং উপরে একটি চার লেনের হাইওয়ে বিস্তৃত। পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য প্রায় 6.15 কিলোমিটার যা এটিকে বাংলাদেশের দীর্ঘতম সেতু এবং বিশ্বের 122তম সেতুতে পরিণত করেছে। 

এছাড়া পদ্মা সেতুর স্প্যান সংখ্যা মোট ৪১টি। এই সেতুর সর্বোচ্চ পাইলের গভীরতা, 122 মিটার, অন্য সব সেতুর চেয়ে বেশি। পদ্মা সেতুর মোট ব্যয় ছিল প্রায় ৩০,১৯৩ কোটি টাকা বা ৩.৫৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

পড়তে পারেন: নতুন মোবাইল ফোনের দাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু সংক্রান্ত সাধারণ তথ্য নিম্নে দেওয়া হলঃ

পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার

মূল সেতুর দৈর্ঘ্য

6.15 কিমি

ভায়াডাক্ট: (রাস্তা)

3.148 কিমি

ভায়াডাক্ট: (রেল)

532 মি 

অ্যাপ্রোচ রোড: 

12 কিমি

স্প্যান

  41 নং

উপরের ডেকে

22 মিটার চওড়া ডেক স্ল্যাব

নিচের ডেক

একক ট্র্যাক ডুয়েল গেজ রেল

আরো পড়ুন: ভালোবাসা নিয়ে কিছু কথা
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতুর টোল রেট 2022

পদ্মা সেতুর টোল রেট 2022

পদ্মা সেতু পার হতে হলে মাওয়া ও জাঞ্জিরা পাশের টোল প্লাজায় টোল দিতে হয়। যাইহোক, যানবাহন ভেদে টোল খরচ ভিন্ন হয়। ব্যবহারকারীর সুবিধার জন্য, আমরা গাড়ির উপর ভিত্তি করে খরচ তালিকাভুক্ত করেছি।

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতুর টোল তালিকা

যানবাহনের নাম

টোল রেট (টাকা)

মোটরসাইকেল

100 টাকা

গাড়ি/জিপ

৭৫০ টাকা

পিকআপ

1,200 টাকা

মাইক্রোবাস

1,300 টাকা

মিনিবাস

1,400 টাকা

মাঝারি বাস

2,000 টাকা

বড় বাস 

2,400 টাকা

ট্রাক (5 টন পর্যন্ত)

1,600 টাকা

ট্রাক (5-8 টন)

2,100 টাকা

ট্রাক (৩ এক্সেল)

5,500 টাকা

ট্রেলার (4 এক্সেল)

6,000 টাকা

টেলার (4 এক্সেলের উপরে)

6,000 টাকা +

আরো পড়ুন: কম দামে বাটন ফোন ২০২২

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতুতে কিভাবে যাবেন?

পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার

পদ্মা বহুমুখী সেতুটি এপ্রোচ রোড, মাওয়ায় অবস্থিত। যাত্রাবাড়ী বাসস্টপ থেকে পদ্মা সেতুর দূরত্ব প্রায় ৪০ কিলোমিটার। যাত্রাবাড়ী থেকে, আপনি একটি বাসে চড়ে বা আপনার গাড়ি চালিয়ে এক ঘন্টার মধ্যে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারেন।

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা নদীর কাছে করণীয়

পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে পদ্মা নদীর কাছে পর্যটকদের আকর্ষণ বাড়ছে। প্রথমদিকে, লোকেরা পদ্মা নদীতে নদীর তীর ঘুরে দেখতে, আশেপাশের রেস্টুরেন্টে বা মাওয়া ফেরি ঘাটে ইলিশ খেতে যেতেন। এর মাধ্যমে পদ্মার কাছাকাছি পর্যটন প্রতিদিনই বিকশিত হচ্ছে। 

পদ্মা নদীতে সহজে প্রবেশের জন্য পদ্মা নদীর কাছাকাছি অনেক কিছু করার আছে। ব্যবহারকারীদের সহজ সুবিধার জন্য, আমরা আপনার প্রিয়জন বা বন্ধুদের সাথে অন্বেষণ করার মতো শীর্ষ আকর্ষণগুলির একটি তালিকা নিয়ে এসেছি।

আরো পড়ুন: টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

FAQ - পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান 

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

প্রশ্নঃ-  পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত ?

উত্তরঃ- পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ হচ্ছে,  ৩০ হাজার ১০০ কোটি ৪২ লক্ষ্য টাকা। এটা কোন লোন ব্যতীত সম্পূর্ণ বাংলাদেশের নিজ অর্থায়নে নির্মিত।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতুর কাজ সম্পূর্ণ করতে কত বছর সময় লেগেছিল ?

উত্তরঃ- সর্বপ্রথম পদ্মা সেতুর কাজ শুরু হওয়ার কথা ছিল ২০০৭ সালে এবং শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১১ সালে। কিন্তু তা না হয়ে পদ্মা সেতুর  কাজ শুরু হয় ২০১৪ সালে এবং শেষ হয় ২০২২ সালে।  তাই বলা যায় পদ্মা সেতুর কাজ সম্পূর্ণ করতে সময় লেগেছে প্রায় ৮ বছর।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ ও প্রস্ত কতদূর ?

উত্তরঃ- পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ হলো ৬.১৫ কিলোমিটার।

এবং প্রস্ত হলো ৭২ ফুট।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতুতে কতটি পিলার ব্যবহার করা হেয়েছে ?

উত্তরঃ- পদ্মা সেতুতে সর্বমোট ৪৬ টি পিলার ব্যবহার করা হয়েছে এবং প্রতিটি পিলারে ৬ টি করে পাইলিং রয়েছে।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতুর পাইলিং গভীরতা কত?

উত্তরঃ- পদ্মা সেতুর পাইলিং গভীরতা হলো ৩৮৩ ফুট।

প্রশ্নঃ- বহির বিশ্বের পদ্মা সেতুর অবস্হান কত তম?

উত্তরঃ- বিশ্বে অসংখ্য সেতু রয়েছে দৈর্ঘের দিক দিয়ে পদ্মা হচ্ছে ১২২ তম দীর্ঘ সেতু। তবে এশিয়া উপমহাদেশে তার অবস্থান হচ্ছে ২য় তম। এবং বাংলাদেশ তার অবস্থান হচ্ছে ১ম তম।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতুর পূর্বে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সেতু ছিল কোনটি?

উত্তরঃ- পদ্মা সেতুর পূর্বে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সেতু ছিল বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু।

প্রশ্নঃ- সেতু নির্মাণ কাজে কতজন শ্রমীক কাজ করেছে?

উত্তরঃ- প্রায় ৪ হাজার শ্রমীক।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতুর দুই প্রান্তে কোন কোন জেলায় অবস্থিত?

উত্তরঃ- পদ্মা সেতু পদ্মা নদীর উপরে অবস্হিত। তিনটি জেলাকে সংযুক্ত করেছে  মুন্সিগঞ্জের লৌহজং,  মাদারীপুর ও শরীয়তপুর অবস্থিত।

প্রশ্নঃ- পদ্মা সেতু  প্রকল্পে নদী শাসন কত কিলোমিটার এবং তার খরচ কত?

উত্তরঃ- সেতুর দুই প্রান্তে নদী শাসন প্রায় ১২ কিলোমিটার। তার খরচ হলো ৮ হাজার ৭০৭ কোটি ৮১ লক্ষ্য টাকা।

আরো পড়ুন: ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভাল মোবাইল 2022
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু নিয়ে একটি তদন্ত প্রতিবেদন

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

এক নজরে পদ্মা বহুমুখী সেতু

বহন করে

মোটর গাড়ি , রেলওয়ে

ক্রস

পদ্মা নদী

লোকেল

Louhajong, Munshiganj to Shariatpur and Madaripur, Bangladesh

দ্বারা পরিচালিত

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ

নকশাকার

Maunsell AECOM

ডিজাইন

ট্রাস ব্রিজ

উপাদান

ইস্পাত

মোট দৈর্ঘ্য

6,150 মি (20,180 ফুট)

প্রস্থ

21.10 মি (69.2 ফুট)

নির্মাণ শুরু

2013 সালে প্রত্যাশিত

নির্মাণ শেষ

2016 সালে প্রত্যাশিত

স্থানাঙ্ক

23°25?21?N 90°18?35?E স্থানাঙ্ক : 23°25?21?N 90°18?35?E

পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু অনুচ্ছেদ

পদ্মা সেতু হল পদ্মা নদীর উপর একটি বহুমুখী সড়ক-রেল সেতু যা বাংলাদেশে নির্মিত হবে । সম্পূর্ণ হলে এটি হবে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ সেতু এবং সড়ক চলাচলের জন্য প্রথম নির্দিষ্ট নদী পারাপার। 


এটি লৌহজং , মুন্সীগঞ্জকে শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের সাথে সংযুক্ত করবে, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল, উত্তর ও পূর্বাঞ্চলের সাথে সংযুক্ত করবে। প্রকল্পটি তিনটি জেলাকে কভার করে - মুন্সীগঞ্জ ( মাওয়া পয়েন্ট /উত্তর তীর), শরীয়তপুর এবং মাদারীপুর ।(জাঞ্জিরা/দক্ষিণ তীর)। 


অধিগ্রহণ করা এবং এর উপাদানগুলির জন্য প্রয়োজনীয় জমির মোট এলাকা হল 918 হেক্টর। কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডের জন্য জমি অধিগ্রহণ করা হবে ছয় বছরের জন্য ভাড়া ভিত্তিতে। নতুন নকশা অনুসারে, অধিগ্রহণের জন্য অতিরিক্ত 144.04 হেক্টর চিহ্নিত করা হয়েছে, যা মোট 1062.14 হেক্টরে নিয়ে এসেছে। 


এই অতিরিক্ত জমির প্রয়োজন কারণ প্রকল্প সাইটটি ক্ষয়জনিত কারণে, স্থানান্তর কাঠামোর জন্য এবং রেলওয়ের সারিবদ্ধকরণের পরিবর্তনের কারণে উল্লেখযোগ্য জমি হারিয়েছে।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

আশ্চর্যজনক পদ্মা নদী অভিজ্ঞতা

পদ্মা নদীর কাছে একটি রিফ্রেশিং আউটিং আইডিয়া খুঁজছেন যেখানে আপনি আপনার পরিবার বা বন্ধুদের সাথে মানসম্পন্ন সময় কাটাতে পারেন? পদ্মা নদী ক্রুজ শক্তিশালী পদ্মা নদীর চারপাশে একটি দিনব্যাপী ক্রুজের অভিজ্ঞতার সমাধান মাত্র। 

এই নদী ক্রুজে, আপনি সহজেই উপলব্ধ প্যাকেজগুলি থেকে চয়ন করতে পারেন এবং আপনি সহজেই আপনার পছন্দগুলির উপর ভিত্তি করে নিখুঁত বিকল্পটি নির্বাচন করতে পারেন। ক্রুজের অভিজ্ঞতা জুড়ে, আপনি সকালের নাস্তা এবং চা বা কফি পাবেন। এর পরে, দুপুরের খাবার পরিবেশন করা হবে, তারপরে সন্ধ্যার জলখাবার এবং চা/কফি। 

আপনি যদি একটি ডিনার ক্রুজ বেছে নেন, তাহলে আপনি বিশেষ ডেজার্টের সাথে একটি BBQ ডিনারও পাবেন। তাছাড়া, আপনি রাতারাতি ক্রুজ বেছে নিতে পারেন যা পরের দিনের ব্রেকফাস্ট অন্তর্ভুক্ত করবে। সংক্ষেপে, পদ্মা রিভার ক্রুজ হল দিনভর বা রাতের ক্রুজের অভিজ্ঞতার প্রবেশদ্বার যা আপনি আপনার প্রিয়জন এবং বন্ধুদের সাথে উপভোগ করতে পারেন।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে একটি রোড ট্রিপ

ভারী যানজটের মধ্যে শহরের জীবনের তাড়াহুড়ার কারণে একটি আনন্দদায়ক ভ্রমণের জন্য মাখনের মতো মসৃণ একটি হাইওয়ে চিত্রিত করা কঠিন। আপনি যদি এখনও মাওয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে না যান তবে মনোমুগ্ধকর কিছু মিস করছেন। পোস্তগোলা ব্রিজ পার হওয়ার পর মাওয়া এক্সপ্রেস রুটটি প্রায় নির্জন হাইওয়ের 30 কিলোমিটার জুড়ে অবস্থিত। 

নিখুঁত, নিখুঁতভাবে সংগঠিত এক্সপ্রেসওয়েতে চমত্কার লেন রয়েছে। মাওয়া রোডের রাতের ভিস্তাটি চোখের জন্য বিশেষভাবে আশ্চর্যজনক এবং মনোরম। মাওয়া মহাসড়কে ভ্রমণকারীরা নিজেদের বা তাদের যানবাহনের ছবি তোলার জন্য নির্দিষ্ট স্থানে থামে। আপনি ত্বরণ করার সময় আপনার স্পিডোমিটারে নজর রাখতে ভুলবেন না।

আরো পড়ুন: অনলাইন ইনকাম বাংলাদেশী সাইট

মাওয়া রিসোর্টে সংক্ষিপ্ত অবস্থান

আপনার বন্ধু এবং পরিবারের সাথে মাওয়া রিসোর্টে একটি ছুটির ছুটির পরিকল্পনা করুন। রিসোর্টটি সুবিধাজনকভাবে N8 (ঢাকা-মাওয়া হাইওয়ে) এর শেষ প্রান্তে অবস্থিত, দেশের রাজধানী ঢাকা থেকে প্রায় 38 কিলোমিটার এবং এক ঘন্টারও কম দূরত্বে। রিসোর্ট থেকে মনোরম পদ্মা নদী খুব বেশি দূরে নয়। আমাদের রিসোর্টে থাকার সময় আপনি পদ্মা সেতু এবং মাওয়া ঘাট ঘুরে আসতে পারেন। 

আপনি আপনার খালি পেট পূরণ করতে সাইটের "পূর্ব-পশ্চিম" রেস্তোরাঁয় যেতে পারেন, যেখানে দক্ষ শেফরা আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনার খাওয়া সবচেয়ে সুস্বাদু খাবারের একটি তৈরি করবে। 

তাজা নদীর মাছ এবং বেশ কিছু ঐতিহ্যবাহী এবং আঞ্চলিক চাটনি রেস্তোরাঁ (ভোর্তা) দ্বারা দেওয়া অনেক বাংলাদেশী বিশেষত্বের মধ্যে রয়েছে। মাওয়া রিসোর্ট হল সাপ্তাহিক ছুটির দিনে বা দিনের পরিদর্শনের জন্য শহরবাসীদের জন্য একটি চমৎকার গন্তব্যস্থল।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

পদ্মা সেতু

 

ইলিশ খান

সেখানে "প্রজেক্ট ইলিশ" নামে একটি সুন্দর রেস্তোরাঁ আছে, তাই সেখানে খেতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ না করলে আর চিন্তা করার দরকার নেই। রেস্তোরাঁটির সম্মুখভাগটি স্বতন্ত্র, এবং পুরো স্থাপনাটি একটি ইলিশ মাছের মতো। 

বাচ্চাদের সাথে গ্রাহকদের নৈমিত্তিক ডাইনিং আউট অভিজ্ঞতা থাকতে পারে কারণ তারা একটি বাচ্চার জোন অফার করে এবং আপনি একটি এয়ার কন্ডিশনার নীচে আপনার সুস্বাদু খাবার উপভোগ করতে পারেন। অতিরিক্তভাবে, পর্যাপ্ত পার্কিং অফার করা দর্শকদের গ্রহণের জন্য খুবই সহায়ক।

আরো পড়ুন: অনলাইন ইনকাম বাংলাদেশী সাইট

মাছ কেনাকাটা মাওয়া বাজার

মাছের অনুরাগীদের জন্য মাওয়া বাজার আদর্শ অবস্থান। যে কেউ এখানে নদীর বিভিন্ন প্রজাতির মাছের সন্ধান করতে পারেন। বেশিরভাগ সময় বাজার থেকে কেনা মাছ বেঁচে থাকে। ফলস্বরূপ, এই মাছগুলি কাছের যে কোনও হোটেল বা রেস্তোরাঁয় তৈরি করা হলে একটি অবিশ্বাস্য স্বাদ রয়েছে। 

বেশিরভাগ সময়, দর্শনার্থীরা তাদের বন্ধু এবং পরিবারের সাথে বাড়িতে খেতে প্রচুর পরিমাণে মাছ কিনতে এখানে আসেন। তাজা মাছ পাওয়ার সবচেয়ে ভালো জায়গা হল মাওয়া, যেখানে আপনি এটি প্রায় এক-তৃতীয়াংশ কম দামে কিনতে পারবেন।

চিত্র: প্রস্তাবিত পদ্মা সেতুর গ্রাফিক্যাল উপস্থাপনা

পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত ?

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

দ্বি-স্তরের স্টিল ট্রাস ব্রিজটি উপরের স্তরে একটি চার লেনের মহাসড়ক এবং নীচের স্তরে একটি একক ট্র্যাক রেলপথ বহন করবে। প্রকল্পে 6.15 কিলোমিটার দীর্ঘ এবং 21.10 মিটার চওড়া সেতু, 15.1 কিলোমিটার অ্যাপ্রোচ রোড, টোল প্লাজা এবং পরিষেবা এলাকা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।


অর্থায়ন

প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে US$ 3.00 বিলিয়ন। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (US$615m), বিশ্বব্যাংক ($1.5 বিলিয়ন), জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি ($415m), এবং ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক ($140m) প্রকল্পের জন্য অর্থায়ন করে। 


সরকার ঘূর্ণিঝড়-প্রবণ উপকূলীয় এলাকায় পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য আইডিবির সাথে আরও 14.84 মিলিয়ন ডলারের চুক্তি স্বাক্ষর করেছে এবং আবুধাবি ডেভেলপমেন্ট গ্রুপ ($30 মিলিয়ন)। মোট অর্থের মধ্যে সরকার ৫০ কোটি টাকা দেবে এবং বাকি টাকা আসবে প্রকল্প সহায়তার আকারে।


বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ (বিবিএ) এপ্রিল 2010 সালে প্রকল্পের জন্য প্রাক-যোগ্যতা টেন্ডার আমন্ত্রণ জানায়। সেতুর নির্মাণ কাজ 2011 সালের প্রথম দিকে শুরু হবে এবং 2013 সালে বড় সমাপ্তির জন্য প্রস্তুত হবে বলে আশা করা হয়েছিল (এবং 2015 সালের শেষের দিকে সমস্ত বিভাগ সম্পূর্ণ হবে)। 


প্রস্তাবিত পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পটি মাওয়া-জাঞ্জিরা পয়েন্টে পদ্মা নদীর উপর একটি নির্দিষ্ট সংযোগের মাধ্যমে দেশের মধ্য ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মধ্যে সরাসরি সংযোগ প্রদান করবে। 


আরো পড়ুন: প্রেমিকার জন্য রোমান্টিক কথা

30 মিলিয়নেরও বেশি জনসংখ্যার এই তুলনামূলকভাবে অনুন্নত অঞ্চলের সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং শিল্প বিকাশের সুবিধার্থে সেতুটি উল্লেখযোগ্যভাবে অবদান রাখবে। প্রকল্পের প্রত্যক্ষ সুবিধার প্রভাবের এলাকা প্রায় 44,000 কিমি বা বাংলাদেশের মোট এলাকার 29%। 

 

অতএব, প্রকল্পটি দেশের পরিবহন নেটওয়ার্ক এবং আঞ্চলিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের উন্নতির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো হিসাবে দেখা হয়। সেতুটিতে ভবিষ্যতে সম্প্রসারণের জন্য রেল, গ্যাস, বৈদ্যুতিক লাইন এবং ফাইবার অপটিক কেবলের ব্যবস্থা রয়েছে। 


বাংলাদেশ সরকার, বিশ্বব্যাংক, এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এবং ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের যৌথ অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ প্রকল্পটির নির্বাহী সংস্থা। 


জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এবং ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ প্রকল্পটির নির্বাহী সংস্থা। জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এবং ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ প্রকল্পটির নির্বাহী সংস্থা।


পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ার সঙ্গে সরকার একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই করতে যাচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হলেই ঋণের সুদসহ অন্যান্য বিষয় আলোচনার মাধ্যমে চূড়ান্ত করা হবে বলে রাজধানীর সড়ক ও জনপথ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী জানান। গত ৩০ জানুয়ারি মালয়েশিয়া সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা সেতু নির্মাণে অর্থায়নের প্রস্তাব দেয়, যা বাংলাদেশ সরকার স্বাগত জানিয়েছে। মালয়েশিয়ার সরকারী বার্তা সংস্থা বার্নামা শনিবার জানিয়েছে যে অভিজ্ঞ মালয়েশিয়ান নির্মাণ সংস্থাগুলির সমন্বয়ে একটি কনসোর্টিয়াম স্থাপন করা হবে $2.19 বিলিয়ন (RM 6)।


6.15 কিলোমিটার সেতুটির নির্মাণ অনিশ্চিত হয়ে পড়ে যখন বিশ্বব্যাংক গত বছর প্রাক-বিডিং প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগে $1.2 বিলিয়ন ঋণ স্থগিত করে। 29 জুন 2012-এ, বিশ্বব্যাংক তার $1.2 বিলিয়ন ঋণ বাতিল করে।


১৬ জুলাই, চায়না রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন বাংলাদেশ সরকারকে পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য বিশ্বব্যাংকের চেয়ে ভালো অফার দিয়ে কোনো সুদ এবং 3 বছরের কাজের সময় বৈশিষ্ট্যের প্রস্তাব দিয়েছে।

পদ্মা সেতু: শুরু থেকে এখন পর্যন্ত

2.1.0 পদ্মা সেতুর তহবিল বৃদ্ধি

পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত

পদ্মা সেতু বাংলাদেশের জনগণের কাছে একটি স্বপ্নের প্রকল্প। বাংলাদেশের অর্থনীতিতেও এর ব্যাপক প্রভাব পড়ছে। সম্পূর্ণ হলে এটি হবে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ সেতু এবং সড়ক চলাচলের জন্য প্রথম নির্দিষ্ট নদী পারাপার। 


এটি লৌহজং , মুন্সীগঞ্জকে শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের সাথে সংযুক্ত করবে, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমে, উত্তর ও পূর্বাঞ্চলের সাথে সংযোগ স্থাপন করে। 


এটি দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের অর্থনৈতিক সম্ভাবনা উন্মোচন করবে, লক্ষ লক্ষ বাংলাদেশীর জীবন পরিবর্তন করবে এবং মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদার দিকে জাতীয় প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করবে। 

আরো পড়ুন: প্রেমিকার জন্য রোমান্টিক কথা

এটি এই এলাকায় একটি বৃহৎ আকারের উন্নয়নকে সক্ষম করবে যা আরও ব্যবসা সম্পর্কিত কার্যক্রম নিশ্চিত করবে। চূড়ান্ত ফলাফল বাংলাদেশের মোট অর্থনীতির প্রসারের একটি ভাল পরিমাণ হবে.


০৪ ডিসেম্বর ২০১০ এ যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন বলেছেন, বহুল কাঙ্খিত পদ্মা সেতুর জন্য তহবিল বরাদ্দ করা হয়েছে এবং বর্তমান সরকারের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই এর নির্মাণকাজ শেষ হবে।


শরীয়তপুরের জাজিরায় সেতুর জন্য যাদের জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে তাদের মধ্যে ক্ষতিপূরণ বিতরণের সময় মন্ত্রী ০৩ ডিসেম্বর, ২০১০ এ কথা বলেন ।


আবুল হোসেন বলেন, সেতুটি 210 বিলিয়ন টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে - যার মধ্যে 160 বিলিয়ন টাকা বিদেশী দাতারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছে এবং 50 বিলিয়ন টাকা সরকার দেবে।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

সর্বশেষ পরিসংখ্যানটি নির্মাণের মূল অনুমানের চেয়ে অনেক বেশি, যা দাঁড়িয়েছে 168 বিলিয়ন টাকা বা $2.4 বিলিয়ন।


মোট ব্যয়ের মধ্যে বিশ্বব্যাংক $1.2 বিলিয়ন, জাপান $300 মিলিয়ন, এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক $550 বিলিয়ন, ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক $120 মিলিয়ন এবং আবুধাবি ডেভেলপমেন্ট গ্রুপ $30 মিলিয়ন দেবে। বাকি অর্থ সংগ্রহ করা হবে বিভিন্ন অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবশ্য কয়েকদিন আগে বলেছিলেন যে জাপানে তার সরকারী সফরের সময়, জাপান সরকার সেতু নির্মাণের জন্য অতিরিক্ত 100 মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।


অন্যদিকে 19 ই ডিসেম্বর, 2010-এ বিশ্বব্যাংক ঘোষণা করেছিল যে তারা জানুয়ারিতে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের জন্য একটি প্রাথমিক $1.2 বিলিয়ন (84 বিলিয়ন টাকা) অর্থায়ন প্যাকেজ চূড়ান্ত করবে বলে আশা করা হচ্ছে, বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর এলেন গোল্ডস্টেইনের মতে। 


তিনি এই ফ্ল্যাগশিপ প্রকল্পের প্রস্তুতির বিষয়ে একটি আপডেট প্রদান এবং নির্দেশনা চাইতে আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করার সময় তিনি এটি নিশ্চিত করেন।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

প্রস্তুতির অগ্রগতি মূল্যায়ন করতে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর ব্রিজ সাইট পরিদর্শনের পর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক হয়। সেতু নির্মাণের ফলে প্রায় 14,000 পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হবে, যার জন্য অনেক পরিবারের জমি ক্রয় এবং পুনর্বাসন প্রয়োজন। দৃঢ় পরিবেশগত এবং সামাজিক কর্ম পরিকল্পনা ইতিমধ্যে বাস্তবায়নাধীন, এবং বাংলাদেশের জন্য বিশ্বব্যাপী পুরস্কার এবং স্বীকৃতি অর্জন করেছে।


সেতু নির্মাণের কাজ চলছে। ক্লিনিক, স্কুল, বাজার এবং অন্যান্য সম্প্রদায়ের অবকাঠামো নির্মাণ, স্থানীয় পুরুষ ও মহিলাদের নিয়োগ, চারটি পুনর্বাসন সাইটে শুরু হয়েছে' মিসেস গোল্ডস্টেইন বলেছেন। '

 

আমাদের অবদানের আনুষ্ঠানিক অনুমোদনের আগে পূর্ববর্তী অর্থায়নের মাধ্যমে, বিশ্বব্যাংক ইতিমধ্যেই জমি ক্রয়ের জন্য অর্থায়ন করছে। সামগ্রিকভাবে, আমরা পরিবেশগত এবং সামাজিক কর্মকাণ্ডে $220 মিলিয়ন অর্থায়ন করব যাতে নিশ্চিত করা যায় যে নির্মাণ অঞ্চলের পরিবারগুলি উন্নত কল্যাণের জন্য জমি, বাড়ি, জীবিকা এবং সম্প্রদায়ের সম্পদ রয়েছে।'


বৈঠকে, মিসেস গোল্ডস্টেইন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে তার নেতৃত্ব এবং প্রকল্পের অগ্রগতি নিবিড় পর্যবেক্ষণের জন্য অভিনন্দন জানান, যা প্রস্তুতির গতি বজায় রেখেছে। 


তিনি এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক, ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি সহ সহ-অর্থদাতাদের মধ্যে শক্তিশালী অংশীদারিত্বের কথাও উল্লেখ করেছেন, 

 

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

যা প্রকল্পের প্রস্তুতিকে ট্র্যাক রাখতে সাহায্য করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দ্রুত বাস্তবায়নকে উৎসাহিত করেছেন এবং এ জাতীয় বিশিষ্ট ও জাতীয় মর্যাদার প্রকল্পে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার গুরুত্বের ওপর জোর দিয়েছেন।


ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের (আইডিএ) একটি নরম ঋণের মাধ্যমে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে এক শতাংশেরও কম সুদ এবং 40 বছরের ঋণ পরিশোধের মেয়াদ থাকে। এই ধরনের স্বল্পমূল্যের অর্থায়ন সেতুটি সম্পন্ন হলে বাংলাদেশের জনগণের জন্য সর্বাধিক উন্নয়ন সুবিধা নিশ্চিত করে।

আরো পড়ুন: গেম খেলে টাকা আয় করার উপায়

2.2.0 পদ্মা সেতুর দুর্নীতি ও তদন্তের প্রশ্ন:

এপ্রিল, 2011: বাংলাদেশে 2.9 বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতি ও অনিয়মের গুরুতর অভিযোগে আন্তর্জাতিক কর্তৃপক্ষ তদন্ত শুরু করেছে। পদ্মা সেতু প্রকল্পে ব্যাপক ঘুষের অভিযোগ থাকলে, আরাফাত রহমান কোকো 

 

[সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ছেলে] ইতিমধ্যেই ধরা পড়ার পর যোগাযোগমন্ত্রী হবেন দ্বিতীয় বাংলাদেশি নাগরিক যিনি কোনো আন্তর্জাতিক কোম্পানির কাছ থেকে ঘুষ নিতে গিয়ে ধরা পড়বেন। NICO থেকে বিপুল পরিমাণ ঘুষ। সৈয়দ আবুল হোসেনকে বাংলাদেশের মন্ত্রীসভার অন্যতম প্রভাবশালী মন্ত্রী হিসেবে বিবেচনা করা হয়।


NICO রিসোর্সেস ইনকর্পোরেটেড কর্তৃক প্রথমবারের মতো বিদেশী ঘুষের জন্য দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পরে, যেটি একজন বাংলাদেশী জুনিয়র জ্বালানি মন্ত্রীকে ঘুষ দেওয়ার কথা স্বীকার করেছিল, যাকে একটি গাড়ি ব্যবহার করে এবং কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অর্থপ্রদানের সফরের বিনিময়ে পরিশোধ করা হয়েছিল, কানাডিয়ান কর্তৃপক্ষের অফিসে অভিযান চালায়। 


বাংলাদেশে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে একটি সেতু প্রকল্পে ইঞ্জিনিয়ারিং জায়ান্টের কাজের দুর্নীতির তদন্তের ক্ষেত্রে বৃহস্পতিবার টরন্টোর বাইরে SNC-Lavalin Group Inc. রয়্যাল কানাডিয়ান মাউন্টেড পুলিশ [আরসিএমপি]-এর একজন মুখপাত্র অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 


পদ্মা প্রকল্পের উল্লেখ না করেই, লেসলি কুইন্টন, গ্লোবাল কমিউনিকেশনের এসএনসি-লাভালিন ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেছেন, এটি "আরসিএমপিকে একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে তাদের তদন্তে সহায়তা করছে যেখানে তারা আমাদের সহযোগিতার অনুরোধ করেছিল।"

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

"আমরা তাদের অনুরোধগুলি সম্পূর্ণরূপে মেনে চলছি এবং এমন কোনও কারণ সম্পর্কে অবগত নই যা এই ধরনের তদন্তের নিশ্চয়তা দেবে," তিনি বলেছিলেন। "যেহেতু পরিস্থিতি তদন্তাধীন, আমরা আর কোনো মন্তব্য করতে পারি না।"


পদ্মা সেতু প্রকল্পের বিডিং প্রক্রিয়ায় কথিত দুর্নীতির বিষয়ে বিশ্বব্যাংকের কর্মকর্তাদের রেফারেলের পর আরসিএমপি তদন্ত শুরু করে। আরসিএমপির মুখপাত্র কনস্ট. জুলি মোরেল নিশ্চিত করেছেন যে বৃহস্পতিবার এসএনসি-লাভালিন কর্মীদের তদন্তের অংশ হিসাবে বাহিনী বিভিন্ন স্থানে অনুসন্ধান পরোয়ানা কার্যকর করেছে।


বিশ্বব্যাংকের একজন মুখপাত্র বলেছেন, বাংলাদেশে পদ্মা সেতু প্রকল্পের বিডিং প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তকারী ব্যাংকের দুর্নীতিবিরোধী ইউনিটের রেফারেলের পর RCMP "বেশ কয়েকটি স্থানে" অনুসন্ধান পরোয়ানা কার্যকর করেছে। 


বিশ্বব্যাংক পদ্মা নদীর উপর চার মাইল দীর্ঘ সেতু নির্মাণের জন্য বাংলাদেশকে 1.2 বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ দেওয়ার জন্য এপ্রিল 2011 সালে 40 বছরের একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। সেতুটি বাংলাদেশের অনুন্নত দক্ষিণকে রাজধানী ঢাকা এবং দেশের প্রধান বন্দর চট্টগ্রামের সাথে সংযুক্ত করবে। কাজ শেষ হলে এটি হবে দেশের সবচেয়ে বড় সেতু।


"আমাদের জানানো হয়েছে যে রয়্যাল কানাডিয়ান মাউন্টেড পুলিশ কানাডার আইন লঙ্ঘনের জন্য এসএনসি-লাভালিনের কর্মীদের তদন্ত করছে," বিশ্বব্যাংকের মুখপাত্র বলেছেন। "আমরা বিশ্বব্যাংকের রেফারেলের দৃঢ় প্রতিক্রিয়ার জন্য রয়্যাল কানাডিয়ান মাউন্টেড পুলিশকে প্রশংসা করি এবং এর তদন্তের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করছি।"

 

এপ্রিল, 2011-এ SNC-Lavalin-এর অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নির্বাহী ইয়ান বোর্ন বলেন, কোম্পানি "আমাদের নিজস্ব অভ্যন্তরীণ তদন্ত শুরু করেছিল যখন এই বিষয়টি আমাদের নজরে আনা হয়েছিল, এবং আমরা এই বিষয়ে বিশ্বব্যাংকের সাথে সম্পূর্ণ সহযোগিতা চালিয়ে যাব।"


কারণ দুর্নীতির প্রশ্ন উঠেছে, বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশ সরকারকে পরামর্শ দিয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের জন্য কিছু পদক্ষেপ নিতে। বিশ্বব্যাংক প্রস্তাব করেছে যে সরকার চারটি ব্যবস্থা গ্রহণ করুন।


§ প্রথমত, দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) তদন্ত ও ফলোআপে একসঙ্গে কাজ করার জন্য একটি বিশেষ যৌথ তদন্তকারী এবং প্রসিকিউটরিয়াল টিম গঠন করতে বলা হয়েছিল। দুদক এ প্রস্তাবে একমত হয়েছে।


§ দ্বিতীয়ত, সরকার একটি বিকল্প প্রকল্প বাস্তবায়ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে যা সহ-অর্থায়নকারীদের ক্রয় প্রক্রিয়ার উপর অধিকতর তদারকি করেছে।


§ তৃতীয়ত, এসিসিকে বিশ্বব্যাংকের পৃষ্ঠপোষকতায় একটি বহিরাগত প্যানেলকে তথ্য সরবরাহ করতে বলা হয়েছিল, প্যানেলটিকে তদন্ত প্রক্রিয়ার পর্যাপ্ততা মূল্যায়ন করার অনুমতি দেয়। শেষ পর্যন্ত দুদক তথ্য আদান-প্রদানের জন্য বহিরাগত প্যানেলের সাথে কোনো আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক গ্রহণ করবে না।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

§ অবশেষে, সরকার তদন্তের সময়কালের জন্য সরকারী কর্মকর্তাদের সরকারি চাকরি থেকে বাদ দিতে ইচ্ছুক ছিল না যদিও বাংলাদেশের আইন এটির অনুমতি দেয়। জুনে এগিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজতে শেষ মিশন চলাকালীন চারটি পদক্ষেপের মধ্যে দুটিতে চুক্তিতে পৌঁছাতে অক্ষম; সেতুর প্রতি আমাদের সমর্থন বাতিল করা ছাড়া বিশ্বের আর কোনো বিকল্প নেই।

2.3.0 পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের জন্য বিশ্বব্যাংকের ঋণ বাতিলকরণ:


বাংলাদেশ সরকারের ব্যর্থতার কারণে প্রস্তাবিত ব্যবস্থা গ্রহণ করা; বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতুর জন্য ১.২ বিলিয়ন ডলারের ঋণ বাতিল করেছে। 29 জুন, 2012-এ বিশ্বব্যাংক আনুষ্ঠানিকভাবে ঋণ বাতিলের ঘোষণা দেয়। ব্যাংকের বিবৃতি নিচে দেওয়া হল:

আরো পড়ুন: ফেইসবুক থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম 2022

2.3.1 পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংকের বিবৃতি

ওয়াশিংটন, জুন 29, 2012—বিশ্বব্যাংকের কাছে বিভিন্ন সূত্রের দ্বারা প্রমাণিত বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ রয়েছে যা পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের সাথে বাংলাদেশের সরকারি কর্মকর্তা, এসএনসি লাভালিনের নির্বাহী এবং ব্যক্তিগত ব্যক্তিদের মধ্যে উচ্চ-স্তরের দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের দিকে ইঙ্গিত করে।


বিশ্বব্যাংক সেপ্টেম্বর 2011 এবং এপ্রিল 2012 সালে প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি অর্থমন্ত্রী এবং বাংলাদেশের দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যানের কাছে দুটি তদন্তের প্রমাণ সরবরাহ করেছে। 


আমরা বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে এটি তদন্ত করার জন্য অনুরোধ করেছি। বিষয়টি সম্পূর্ণরূপে এবং যেখানে ন্যায়সঙ্গত, দুর্নীতির জন্য দায়ীদের বিচার করুন। আমরা এটা করেছি কারণ আমরা আশা করেছিলাম যে সরকার বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে গুরুত্ব দেবে।

 

কানাডায়, যেখানে এসএনসি লাভালিনের সদর দফতর অবস্থিত, বিশ্বব্যাংকের একটি রেফারেলের ভিত্তিতে অসংখ্য অনুসন্ধান পরোয়ানা এবং এক বছরব্যাপী তদন্তের পর, ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিসেস পদ্মা সেতু প্রকল্পের সাথে সম্পর্কিত দুই সাবেক এসএনসি নির্বাহীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনে। তদন্ত ও বিচার চলমান আছে কিন্তু এখন পর্যন্ত আদালতে দায়ের করা মামলার গুরুত্ব আরোপ করে।


যেহেতু আমরা বাংলাদেশ এবং অঞ্চলের উন্নয়নের জন্য সেতুর গুরুত্ব স্বীকার করি, তবুও আমরা প্রকল্পের জন্য একটি বিকল্প, টার্নকি-স্টাইল বাস্তবায়ন পদ্ধতির সাথে এগিয়ে যাওয়ার প্রস্তাব দিয়েছি, 

 

যদি সরকার উচ্চ পর্যায়ের দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের উদ্ঘাটন করেছিল তার বিরুদ্ধে গুরুতর পদক্ষেপ নেয়। সুশাসন এবং উন্নয়নের জন্য এই হুমকিগুলির বিষয়ে পদক্ষেপের জন্য চাপ না দেওয়া ব্যাংকের দায়িত্বজ্ঞানহীন হবে।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

বিকল্প টার্নকি-স্টাইল পদ্ধতির সাথে এগিয়ে যেতে ইচ্ছুক হতে, আমরা নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি চেয়েছি:


(i) তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত দুর্নীতি প্রকল্পে জড়িত সন্দেহে সকল সরকারি কর্মকর্তাকে সরকারি চাকরি থেকে ছুটিতে রাখুন;


(ii) তদন্ত পরিচালনার জন্য দুদকের মধ্যে একটি বিশেষ তদন্ত দল নিয়োগ করুন এবং


(iii) আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত বিশ্বব্যাংক কর্তৃক নিযুক্ত একটি প্যানেলে সমস্ত অনুসন্ধানমূলক তথ্যের সম্পূর্ণ এবং পর্যাপ্ত অ্যাক্সেস প্রদান করতে সম্মত হন যাতে প্যানেল তদন্তের অগ্রগতি, পর্যাপ্ততা এবং ন্যায্যতা সম্পর্কে ঋণদাতাদের নির্দেশনা দিতে পারে। 

 

আমরা সরকার এবং ACC এর সাথে ব্যাপকভাবে কাজ করেছি যাতে অনুরোধ করা সমস্ত পদক্ষেপ বাংলাদেশী আইন ও পদ্ধতির সাথে সম্পূর্ণভাবে মিলিত হয়।


আমরা প্রস্তাব করেছিলাম যে যখন প্রথম বিড চালু করা হবে, ব্যাঙ্ক এবং সহ-অর্থদাতারা সিদ্ধান্ত নেবে যে তারা যদি প্যানেলের মূল্যায়নের ভিত্তিতে নির্ধারণ করে যে একটি পূর্ণ ও ন্যায্য তদন্ত চলছে এবং যথাযথভাবে অগ্রগতি হচ্ছে, তাহলে তারা প্রকল্পের অর্থায়নে এগিয়ে যাবে।


অতিরিক্ত মাইল অতিক্রম করার প্রয়াসে, আমরা ব্যাংকের অবস্থান সম্পূর্ণরূপে ব্যাখ্যা করতে এবং সরকারের প্রতিক্রিয়া পেতে ঢাকায় একটি উচ্চ-পর্যায়ের দল পাঠিয়েছি। প্রতিক্রিয়া অসন্তোষজনক হয়েছে.

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির প্রমাণে চোখ বন্ধ করতে পারে না বা করবে না বা করবে না। আমাদের শেয়ারহোল্ডার এবং IDA দাতা দেশগুলির প্রতি আমাদের একটি নৈতিক বাধ্যবাধকতা এবং একটি বিশ্বস্ত দায়িত্ব রয়েছে। 


এটা নিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব যে IDA সংস্থানগুলি তাদের উদ্দিষ্ট উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয় এবং আমরা শুধুমাত্র একটি প্রকল্পের অর্থায়ন করি যখন আমাদের পর্যাপ্ত আশ্বাস থাকে যে আমরা এটি একটি পরিষ্কার এবং স্বচ্ছ উপায়ে করতে পারি। 


বাংলাদেশ সরকারের অপর্যাপ্ত প্রতিক্রিয়ার আলোকে, বিশ্বব্যাংক অবিলম্বে কার্যকর পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের সমর্থনে তার $1.2 বিলিয়ন IDA ক্রেডিট বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।


চ্যালেঞ্জ থেকে সুযোগ পর্যন্ত

বিশ্বব্যাংকের (WB) পদ্মা সেতুর জন্য বাংলাদেশ সরকারের সাথে $1.2 বিলিয়ন ঋণের চুক্তি বাতিলের পরিপ্রেক্ষিতে, সরকার একটি অ্যাসিড-পরীক্ষার মুখোমুখি হয় যা জীবনের যেকোনো চ্যালেঞ্জের মতো সুযোগে রূপান্তরিত হতে পারে। 


তবে, এটি তখনই ঘটতে পারে যখন সরকার আপাত অস্বীকারের সিনড্রোম পরিহার করে এবং দুর্নীতির অভিযোগের সম্পূর্ণ স্বাধীন, বিশ্বাসযোগ্য তদন্ত নিশ্চিত করার সাহস ও প্রতিশ্রুতি তৈরি করে এবং দোষী প্রমাণিত হলে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করে।


ডব্লিউবি ঋণ হল 2.9 বিলিয়ন ডলারের পদ্মা সেতু প্রকল্পের একটি অংশ যা অনেক কারণেই বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে স্বীকৃত হয়েছে, অন্তত বর্তমান সরকারের নির্বাচনী অঙ্গীকারের মূল পথ হিসেবেই নয় যেটি বাংলাদেশের একটি স্বপ্নের মর্যাদা অর্জনে মূর্ত হয়েছে। একটি মধ্যম আয়ের দেশ।


সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারের পাঁচটি শীর্ষ কৌশলগত উপাদানগুলির মধ্যে একটি ছিল দুর্নীতির বিরুদ্ধে একটি অত্যন্ত আপোষহীন অবস্থান যা এই বিপদ নিয়ন্ত্রণে সক্ষমতা তৈরিতে এক ডজনেরও বেশি নির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতি দ্বারা সমর্থিত। 

 

সুস্পষ্ট কারণে, প্রতিশ্রুতির বিপরীতে সরকারের প্রদানের অন্যান্য দিকগুলির মতো এবং সম্ভবত আরও বেশি, পদ্মা সেতু প্রকল্প বাস্তবায়ন দুর্নীতিমুক্ত হবে বলে আশা করা হয়েছিল।


এই প্রেক্ষাপটে সরকার আজ যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে তা গভীর দুঃখজনক, বিব্রতকর ও হতাশাজনক। কিন্তু মর্যাদার সঙ্গে তা মোকাবেলা করা খোদ সরকারেরই হাতে। 


দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তের জন্য সর্বোচ্চ সম্ভাব্য বিশ্বাসযোগ্যতার একটি সম্পূর্ণ স্বাধীন বিশেষ বিচার বিভাগীয় কমিটি গঠনের জন্য সরকারের দ্রুত অগ্রসর হওয়া উচিত।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

এই তদন্তের আদেশ নির্ধারণে, সরকারকে অবশ্যই অস্বীকার করার নীতি থেকে নিজেকে দূরে রাখতে হবে যে দুর্নীতি সংঘটিত হতে পারেনি কারণ এখনও কোনো তহবিল প্রকাশ করা হয়নি। 


দুর্নীতি ঘুষ বা কিকব্যাকের বিনিময়ের চেয়েও বেশি। এটি নীতি ও সিদ্ধান্তকে প্রভাবিত করার ক্ষমতার অপব্যবহার নিয়ে গঠিত, বিশেষ করে স্বার্থের সংঘাত জড়িত। এই ক্ষেত্রে এই ধরনের অপব্যবহার ঘটেছে কিনা তা মূল্যায়ন করা এই ক্ষেত্রে বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ হবে।


প্রস্তাবিত কমিটিকে সম্পূর্ণ ক্ষমতা, স্বাধীনতা এবং প্রযুক্তিগত সহায়তা দিয়ে বিষয়টি তদন্ত করতে হবে এবং একটি নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে সংশ্লিষ্ট আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করতে হবে। কমিটির প্রতিবেদন জমা দেওয়ার সাথে সাথে জনসাধারণের অবগতির জন্য প্রকাশ করতে হবে।

 

WB তার অংশের জন্য নিজেকে একটি বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে এবং তদন্ত প্রক্রিয়ায় সহায়তা করার জন্য সরকারের সাথে জড়িত থাকার এবং তদন্ত প্রক্রিয়ার সাথে ক্রেডিট খোলা রাখার সুযোগটি মিস করেছে।


বিশ্বব্যাংকের সিদ্ধান্ত কিছু দিক থেকে প্রত্যাশিত ছিল। এটি সাধারণ জ্ঞান যে উন্নয়নশীল দেশগুলিতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নকৃত প্রকল্পগুলির তহবিলের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ বছরের পর বছর ধরে দুর্নীতি এবং অপব্যবহারের জন্য হারিয়ে গেছে, যার জন্য প্রধান বোঝা সেই দেশগুলির সরকারের হাতে রয়েছে।


যাইহোক, এটাও সুপরিচিত যে দায়িত্বের একটি অংশও ব্যাঙ্কের উপরই বর্তায়। ব্যাঙ্কের নিজস্ব ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইভালুয়েশন গ্রুপ (IEG) দ্বারা 2009 সালের একটি রিপোর্ট যা ব্যাঙ্কের ম্যানেজমেন্টের সাথে দীর্ঘ লড়াইয়ের পরে প্রকাশ করা হয়েছিল যা প্রকাশ এড়াতে কঠোর লড়াই করে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছিল যে ব্যাঙ্ক তার তহবিলগুলি পর্যাপ্তভাবে রক্ষা করে না। 


ব্যাঙ্কে সুরক্ষা ব্যবস্থার অভাব "বস্তুগত দুর্বলতা" বিভাগে পাওয়া গেছে। আর্থিক অ্যাকাউন্টিং ব্যর্থতা সবচেয়ে গুরুতর. (http://fpif.org/reports/world_bank_corruption) প্রতিবেদনে আরও মন্তব্য করা হয়েছে যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে এক দশকেরও বেশি উচ্চ-স্তরের বক্তৃতা এবং বক্তৃতা দেওয়ার পরেও ব্যাংক তার প্রকল্প এবং আর্থিক ব্যবস্থাপনাকে জালিয়াতির ঝুঁকি থেকে রক্ষা করতে খুব সামান্যই এগিয়েছে।


এই পটভূমিতে, খোলামেলা এবং জবাবদিহিতার জগতে একজন নবাগত হিসাবে, পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ মোকাবেলা করার চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়ে, ব্যাঙ্ক মাথা ব্যথার কারণে মাথা কেটে ফেলার সবচেয়ে সহজ পন্থা অবলম্বন করেছে বলে মনে হচ্ছে।


বৈশ্বিক পাবলিক সোর্স থেকে ব্যাংক যে তহবিল সংগ্রহ করে তার সুবিধা থেকে জনগণকে বঞ্চিত করার পরিবর্তে, এটি আরও কৌশলগত হতে পারত এবং এখন হওয়া উচিত এবং সরকারের সাথে সম্পৃক্ত হওয়া চালিয়ে যাওয়া। 


যদিও বাংলাদেশ এবং কানাডায় কথিত দুর্নীতির তদন্ত অব্যাহত রয়েছে, যেখানে বিশ্বব্যাংকের পূর্ণ সহায়তা প্রদান করা উচিত, এটির সিদ্ধান্তটি পর্যালোচনা করা উচিত এবং সততা, স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য প্রকল্পের মূল বিশ্বস্ত এজেন্ট হিসাবে দায়িত্ব ভাগ করে ঋণ প্রদানের উপায় খুঁজে বের করা উচিত। বাস্তবায়ন প্রক্রিয়ায়।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

মুষ্টিমেয় কিছু লোকের কথিত দুর্নীতির জন্য বিশ্বব্যাংক বা সরকার দেশের জনগণকে উন্নয়নের সুযোগ থেকে বঞ্চিত করতে পারবে না।


বিকল্প উত্স থেকে পদ্মা সেতুর জন্য তহবিল সুরক্ষিত করার জন্য সরকারের উদ্যোগকে বাস্তবে প্রকল্পে এগিয়ে যাওয়ার পরিবর্তে দুর্নীতির অভিযোগ থেকে মনোযোগ সরানোর উপায় হিসাবে বিবেচনা করা যেতে পারে, তবে এটি সফল হলেও এটি বিশ্বাসযোগ্যতার সংকটে সহায়তা করবে না। যা সরকারের মুখোমুখি হয়।


চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা ছাড়া সরকারের কোনো বিকল্প নেই। পদ্মা সেতু প্রকল্পকে একটি টেস্ট কেস হিসেবে গ্রহণ করার মাধ্যমে সরকারকে অবশ্যই প্রমাণ করতে হবে যে, এটি একটি শক্তিশালী সংকেত পাঠানোর ক্ষমতা ও সাহস রাখে যে দুর্নীতি প্রকৃতপক্ষে বাংলাদেশে কারো ভয় বা অনুগ্রহ ছাড়াই একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ। 


এটি আগামী সাধারণ নির্বাচনের দেড় বছর আগে শুধু দেশের জনগণকে রাজি করবে না, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চোখে সরকারের সুনাম সংকট কাটিয়ে উঠতেও সাহায্য করবে।


পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরবর্তী কী হবে

বাংলাদেশের দীর্ঘতম সেতু নির্মাণের জন্য বিশ্বব্যাংকের 1.2 বিলিয়ন ডলারের ঋণ বাতিল করার উদ্দেশ্য ঢাকার কোনো ধরনের দুর্নীতি বিরোধী পদক্ষেপ নেওয়ার উদ্দেশ্যে করা হয়েছিল, এটি বিপরীতমুখী বলে মনে হয়। 


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সাম্প্রতিক দিনগুলিতে আক্রমণাত্মক পদক্ষেপ নিয়েছে, বিশ্বব্যাপী ঋণদাতার পদক্ষেপকে "অসম্মানজনক" বলে অভিহিত করেছে এবং বিকল্প উপায়ে পদ্মা নদীর উপর সেতুর জন্য অর্থায়নের অঙ্গীকার করেছে।


সরকারী মন্ত্রীরা বিশ্বব্যাংকের দুর্নীতির অত্যন্ত বিব্রতকর অভিযোগ থেকে ক্ষতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেছেন, ঋণদাতার সাথে সাংঘর্ষিক 'জাতীয় সম্মানের' বিষয় হিসাবে চিত্রিত করেছেন এবং বিশ্বব্যাংককে দেশের জনগণকে শাস্তি না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

 

৮ জুলাই সংসদে একটি প্রধান নীতিগত ভাষণে, শেখ হাসিনা দেশের ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিকে আহ্বান করে জাতীয়তাবাদী অনুভূতির আবেদন জানান। “তারা আমাদের ভিক্ষা চায়। তারা চায় আমরা গিনিপিগ হিসাবে চালিয়ে যাই …” সে বলল। "আমরা আমাদের নিজস্ব সম্পদ ব্যবহার করে এই প্রকল্পের সাথে এগিয়ে যাব।"


হাসিনার সরকার সারচার্জ ধার্য করা এবং কমপক্ষে $750 মিলিয়ন মূল্যের সার্বভৌম বন্ড ইস্যু করা সহ সম্পদ সংগ্রহের জন্য উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা তৈরি করেছে। 

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে তিনি ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মন্ত্রণালয়কে তাদের কিছু উন্নয়ন প্রকল্প কমিয়ে দিতে এবং ২.৯ বিলিয়ন ডলারের পদ্মা বহুমুখী সেতুর জন্য অর্থ বরাদ্দ করার নির্দেশ দিয়েছেন - একটি প্রধান নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি।


বিশ্লেষকরা বলছেন, কৌশলটি বাংলাদেশের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। সেতু প্রকল্পে উন্নয়ন তহবিল সরানো স্বাস্থ্য ও শিক্ষার মতো খাতকে প্রভাবিত করতে পারে, সামাজিক অর্জনগুলিকে ক্ষুণ্ন করতে পারে এবং প্রবৃদ্ধিকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে।


"আমাদের উন্নয়ন বাজেটের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ দাতাদের অর্থায়নে," বলেছেন পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক ডঃ আহসান মনসুর, ঢাকা-ভিত্তিক একটি থিঙ্ক ট্যাঙ্ক৷ “সরকার কঠোর কঠোরতা আরোপ না করে সত্যিই অর্থ সরাতে পারে না। 

 

আমাদের বিপর্যয়ের সেতু নির্মাণ করা উচিত নয়।”

160 মিলিয়নের দক্ষিণ এশিয়ার দেশ - যার মাথাপিছু আয় $850 - তার উন্নয়ন ব্যয়ের প্রায় অর্ধেক অর্থায়নের জন্য বিদেশী দাতাদের সাহায্যের উপর নির্ভর করে। গত বছর পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির বিষয়ে দাতাদের উদ্বেগের কারণে সহায়তার প্রবাহ কমে যাওয়ায় দেশের বাজেট ঘাটতি আরও প্রসারিত হয়েছে। 


বেলুনিং ঘাটতি সরকারকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এবং বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে প্রচুর পরিমাণে ঋণ নিতে বাধ্য করে, দ্বিগুণ মূল্যস্ফীতিকে স্ফীত করে এবং ব্যক্তিগত বিনিয়োগকে ভিড় করে।


এদিকে, তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ধীরগতি এবং জ্বালানি আমদানি বেড়ে যাওয়ায় বাণিজ্য ঘাটতি বেড়েছে। এপ্রিল মাসে, রিজার্ভ কমে যাওয়ায় এবং দেশের মুদ্রা, টাকা, মার্কিন ডলারের তুলনায় তার মূল্যের দশমাংশেরও বেশি হারানোর পর সরকার IMF থেকে $1 বিলিয়ন ধার নিতে বাধ্য হয়।


আহসান মনসুর সতর্ক করে বলেন, “যদিও পদ্মা সেতু একটি হট বাটন রাজনৈতিক ইস্যু, তবে এটিকে অবশ্যই সুশাসন ও সুষ্ঠু অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনার প্রেক্ষাপটে রাখতে হবে। “মনে রাখবেন, সেতুর খরচের তিন-চতুর্থাংশ বৈদেশিক মুদ্রায় দিতে হবে। 


কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে বর্তমানে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রয়েছে যা আমাদের মাত্র তিন মাসের মধ্যে স্থায়ী হবে। গত বছর বাংলাদেশ ব্যাংক আমদানির খরচ দিতে হিমশিম খায়। অবকাঠামো প্রকল্পে অর্থায়নের জন্য রিজার্ভ ব্যবহার করা প্রশ্নের বাইরে।

 

মনসুর বিশ্বাস করেন যে পৃথক দেশগুলি সেতু প্রকল্পে অর্থায়নে আগ্রহী হতে পারে, তবে সেই তহবিলগুলি ছাড়ের ঋণের হারে হওয়ার সম্ভাবনা কম - বিশ্বব্যাংক বার্ষিক মাত্র 0.75 শতাংশ চার্জ করে।


বন্ড মার্কেটটিও অজানা অঞ্চল। “বাংলাদেশ আগে কখনো সার্বভৌম বন্ড ভাসিয়ে দেয়নি,” মনসুর উল্লেখ করেন। “আমাদের বর্তমান ক্রেডিট রেটিং এ, বন্ডের সুদের হার মাত্র 7 শতাংশের নিচে হতে পারে। আবার, এটা আমাদের বিশ্বব্যাংককে যা দিতে হবে তার চেয়ে অনেক বেশি। গ্রীস বা স্পেনের এমন পরিস্থিতি এড়াতে বাংলাদেশকে সতর্ক থাকতে হবে যেখানে বোঝা গরিব ও মধ্যবিত্তদের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হয়।


গঙ্গার স্থানীয় নাম পদ্মা নদীর উপর প্রস্তাবিত চার মাইল সেতুর উদ্দেশ্য ছিল দেশের অনুন্নত দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলাগুলিকে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে যুক্ত করা, যার ফলে ৩ কোটি মানুষ উপকৃত হবে এবং বাংলাদেশের জিডিপি ১.২ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক।

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

29শে জুন ঋণ বাতিল করার সময়, বিশ্বব্যাংক বলেছিল যে সেতুটির জন্য নির্ধারিত অর্থ অপব্যবহার করার জন্য বাংলাদেশী কর্মকর্তাদের মধ্যে একটি "উচ্চ পর্যায়ের দুর্নীতির ষড়যন্ত্র" এর "বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ" রয়েছে।

 

বিশ্বব্যাংকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, "বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির প্রমাণের দিকে চোখ বন্ধ করতে পারে না বা করবে না বা করবে না।"


ব্যাংকটি বলেছে যে তারা সরাসরি শেখ হাসিনা এবং অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের কাছে ভুল কাজের "বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ" সরবরাহ করেছে কিন্তু সমস্যাটির প্রতিকারের জন্য সন্তোষজনক পদক্ষেপ দেখেনি। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক, প্রকল্পের সহ-অর্থদাতা, বিশ্বব্যাংকের সাথে যোগদান করেছে এবং সেতুটিকে সমর্থনকারী কনসোর্টিয়ামের অন্যান্য সদস্যরা, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এবং ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (আইডিবি) জানিয়েছে। তারা অপেক্ষা করছে বাংলাদেশ কীভাবে দুর্নীতির অভিযোগ মোকাবেলা করে।


বাংলাদেশ সরকার কোনো দুর্নীতি অস্বীকার করেছে, যদিও কানাডিয়ান কর্তৃপক্ষ বিশ্বব্যাংকের রেফারেন্সের ভিত্তিতে নির্মাণ জায়ান্ট এসএনসি লাভালিনের দুই কর্মচারীর বিরুদ্ধে মামলা করছে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২ শে জুলাই সংসদে বলেছেন, “আমাদের আইনে তাদের বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ বিশ্বাসযোগ্য হবে যখন সাক্ষী পাওয়া যাবে”।


রোববার বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ প্রতিনিধি এলেন গোল্ডস্টেইন বলেছেন, ব্যাংক তার অভিযোগে অটল। গোল্ডস্টেইন এক ইমেইলে বলেন, “বিশ্বব্যাংক ২০১১ সালের সেপ্টেম্বর ও ২০১২ সালের এপ্রিলে বাংলাদেশ সরকারের কাছে পদ্মা সেতু প্রকল্পের দুর্নীতির প্রমাণ পেশ করেছে। 

 

“বিশ্বব্যাংকের একটি বাধ্যবাধকতা রয়েছে … এই রেফারেল রিপোর্টগুলিকে গোপন রাখা। যাইহোক, বাংলাদেশ সরকার জনস্বচ্ছতার স্বার্থে এই প্রতিবেদনগুলি এবং সংশ্লিষ্ট চিঠিপত্র প্রকাশ করতে পারে…

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের বাংলাদেশ চ্যাপ্টার অভিযোগের গভীরে যাওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। টিআই বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “আমরা সরকারকে সম্পূর্ণ ক্ষমতা, স্বাধীনতা ও প্রযুক্তিগত সহায়তা দিয়ে একটি বিশেষ বিচার বিভাগীয় কমিটি গঠন করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি, যাতে বিষয়টি তদন্ত করা যায় এবং একটি নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে সংশ্লিষ্ট আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়।”


যদিও ঢাকায় সরকার বলেছে যে তারা এখনও অন্যায়ের কোনও শক্ত প্রমাণ দেখতে পায়নি, বিশ্বব্যাংকের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা জিজ্ঞাসা করেছিলেন: "যদি বিশ্বব্যাংকের প্রমাণ এতই নির্দোষ হয়, তাহলে বাংলাদেশ সরকারকে এটি প্রকাশ করতে কী বাধা দিচ্ছে?"


দাবিত্যাগ:

এই ওয়েব সাইটের তথ্য শিক্ষামূলক উদ্দেশ্যে প্রস্তুত করা হয়. এই সাইটটি সারা বিশ্বের শিক্ষার্থী, অনুষদ, স্বাধীন শিক্ষার্থী এবং সারা বিশ্বের বিদগ্ধ উকিলদের দ্বারা ব্যবহার করা যেতে পারে। সারা বিশ্বের গবেষকদের এই সাইটে তাদের লেখা আপলোড করার সুযোগ রয়েছে।


 ওয়েব পৃষ্ঠায় জনগণের অংশগ্রহণের বিবেচনায়, ব্যক্তি, গোষ্ঠী, সংস্থা, ব্যবসা, দর্শক বা অন্য, এতদ্বারা আইনজীবী ও আইনবিদ এবং এর কর্মকর্তা, বোর্ড এবং কর্মচারীদের যৌথভাবে এবং পৃথকভাবে যেকোন থেকে মুক্তি দেয় এবং চিরতরে অব্যাহতি দেয়। 


সমস্ত ক্রিয়া, কর্মের কারণ, দাবি এবং দাবিগুলি, কোনও ক্ষতি, ক্ষতি বা আঘাতের কারণে, যা পরবর্তীতে ওয়েব পৃষ্ঠায় তাদের কাজে অংশগ্রহণের মাধ্যমে টিকিয়ে রাখা যেতে পারে। 

 

এই রিলিজটি প্রসারিত এবং প্রযোজ্য, এবং সমস্ত অজানা, অপ্রত্যাশিত, অপ্রত্যাশিত এবং সন্দেহাতীত আঘাত, ক্ষয়ক্ষতি, ক্ষয়ক্ষতি এবং দায় এবং এর পরিণতি, সেইসাথে এখন যেগুলি প্রকাশ করা হয়েছে এবং বিদ্যমান রয়েছে তা জানা যায়৷ 

 

যে কোনো রাষ্ট্রের আইনের বিধান যা প্রকাশ করে এমন দাবি, দাবি, আঘাত, বা ক্ষতির জন্য প্রসারিত হবে না যা এই সময়ে বিদ্যমান বলে পরিচিত বা সন্দেহজনক নয়, এই ধরনের মুক্তি কার্যকরকারী ব্যক্তিকে এতদ্বারা স্পষ্টভাবে মওকুফ করা হয়েছে। 


যাইহোক, আইনজীবী এবং আইনবিদরা প্রকাশ বা প্রকাশ করা কোনো তথ্য, যন্ত্রপাতি, পণ্য বা প্রক্রিয়ার নির্ভুলতা, সম্পূর্ণতা বা উপযোগীতার জন্য কোনো আইনি দায়বদ্ধতা বা দায়বদ্ধতা প্রকাশ করে না বা কোনো আইনি দায়বদ্ধতা বা দায় স্বীকার করে না বা এর ব্যবহার ব্যক্তিগত মালিকানাধীন অধিকার লঙ্ঘন করবে না বলে প্রতিনিধিত্ব করে। 

আরো পড়ুন: ফ্রি টাকা ইনকাম ২০২২
পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ২০২২, পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার, Padma Bridge Length, পদ্মা সেতুর খরচ কত, পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য কত, পদ্মা

এখানে ট্রেড নাম, ট্রেড মার্ক, প্রস্তুতকারক বা অন্য কোন নির্দিষ্ট বাণিজ্যিক পণ্য প্রক্রিয়া বা পরিষেবার উল্লেখ করুন, আইনজীবী এবং আইনবিদদের দ্বারা এটির অনুমোদন, সুপারিশ বা অনুগ্রহ গঠন বা বোঝায় না। 


ওয়েব সাইটে প্রকাশ করা লেখকদের মতামত এবং মতামত আইনজীবী এবং আইনবিদদের প্রতিফলিত করে না। সর্বোপরি, এই সাইটের কোন বিষয়বস্তুর জন্য প্রশাসকের কাছে কোন স্বাধীন ব্যবহারকারীর দ্বারা কোন অভিযোগ ড্রপ হলে, আইনজীবী এবং আইনবিদরা এটিকে তার সাইট থেকে অবিলম্বে সরিয়ে দেবেন।




বোট রাইড এক্সপ্লোর করুন

আপনি যদি এতদূর ভ্রমণ করে থাকেন তবে কেন পদ্মার (পদ্মা সেতু) বিশালতা উপভোগ করবেন না? শব্দগুলি পর্যাপ্তভাবে নদীর মহিমা প্রকাশ করতে পারে না এবং বিস্ময়কর বাতাস আপনার অভিজ্ঞতাকে স্বর্গের মতো মনে করবে। মোটরবোট, বড় নৌকা এবং স্পিড বোট সহ বিভিন্ন ধরণের নৌকা রয়েছে। 

অনুগ্রহ করে আপনার পছন্দের একটি চয়ন করুন, তবে মূল্যের সাথে আলোচনা করে এটি ঠিক করতে ভুলবেন না। আপনি এটির শ্রেষ্ঠত্বের প্রশংসা করার জন্য একটি দুর্দান্ত সুবিধার পয়েন্টও খুঁজে পেতে পারেন। 

আপনি নিঃসন্দেহে নদীর প্রেমে পড়ে যাবেন যদি আপনি ভ্রমণ উপভোগ করার জন্য কিছু জলখাবার সঙ্গে নিয়ে আসেন। আপনি অবশ্যই চিরকাল মনোরম দৃশ্য মনে রাখবেন. সেই অমূল্য মুহূর্তগুলি মনে রাখতে সাহায্য করার জন্য এক টন শ্বাসরুদ্ধকর ফটো তুলুন।

ShareTrip এর সাথে আপনার ভ্রমণের পরিকল্পনা করুন

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন ট্রাভেল এজেন্সি, ShareTrip, অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক উভয় রুটে সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের বিমান ভাড়া প্রদান করে। 

উপরন্তু, আপনি প্রাইম এলাকায় একচেটিয়া বাসস্থান ডিসকাউন্ট পাবেন. ব্যক্তিগতকৃত ট্যুর প্যাকেজগুলিও আপনার যাত্রার মূল্য এবং পার্থক্য প্রদান করবে। আপনি আমাদের মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন এবং ওয়েব প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে জনপ্রিয় দেশি এবং বিদেশী অবস্থানে সবচেয়ে সস্তা এয়ারলাইন টিকিট কিনতে পারেন। 

উপরন্তু, আপনি ShareTrip ব্যবহার করে বাংলাদেশের যেকোনো হোটেল বা রিসোর্টে থাকার জন্য বুক করতে পারেন এবং সর্বনিম্ন রেট দিতে পারেন। কয়েক মিনিটের মধ্যে, আপনি দ্রুত বিভিন্ন বিকল্প ব্রাউজ করতে পারেন, একটি রুম চয়ন করতে পারেন, আপনার অনলাইন অর্থপ্রদান শেষ করতে পারেন এবং আপনার রিজার্ভেশনের নিশ্চিতকরণ পেতে পারেন৷

আরো পড়ুন:

►► জীবনে ব্যর্থতার কারণ

►► কন্টেন্ট রাইটিং করে আয়

►► অনলাইন আয়ের সাইট ২০২২

অনলাইনে গল্প লিখে টাকা আয়

কিভাবে ফেসবুক পেজ খুলতে হয় 

সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে করনীয়?

মোবাইল ফোনের দাম ২০২২

►► অনলাইনে ইনকাম করার উপায়

বিবেকানন্দের শিক্ষামূলক বাণী

সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস শাখা 


পদ্মা সেতু কোথায় অবস্থিত?
পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার?
পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত?
সেতুতে পিলার কতটি?
 
পদ্মা সেতু কোথায় অবস্থিত?
পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার?
পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত?
সেতুতে পিলার কতটি?
 
পদ্মা সেতু কোথায় অবস্থিত?
পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার?
পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত?
সেতুতে পিলার কতটি?
 
পদ্মা সেতু কোথায় অবস্থিত?
পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার?
পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত?
সেতুতে পিলার কতটি?
 
পদ্মা সেতু কোথায় অবস্থিত?
পদ্মা সেতু কত কিলোমিটার?
পদ্মা সেতুর সর্বমোট খরচ কত?
সেতুতে পিলার কতটি?
 
Trick Bangla 24

স্বীকারোক্তিঃ এখানে উপস্থাপিত সকল তথ্যই দক্ষ ও অভিজ্ঞ লোক দ্বারা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা। যেহেতু কোন মানুষই ভুলের ঊর্দ্ধে নয় সেহেতু আমাদেরও কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল থাকতে পারে। সে সকল ভুলের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। আপনার নিকট দৃশ্যমান ভুলটি আমাদেরকে নিম্নোক্ত মেইল / পেজ -এর মাধ্যমে অবহিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি। ই-মেইলঃ trickbangla024@gmail.com

*

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন